১৬ ডিসেম্বর, ২০১৭      

English Version

ফ্রান্স

রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নিতে বিশ্বনেতাদের প্রতি আহ্বান

রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নিতে বিশ্বনেতাদের প্রতি আহ্বান

মিয়ানমার থেকে বিপুল সংখ্যক রোহিঙ্গা বাংলাদেশে আগমনের ফলে বাংলাদেশের বন ও পরিবেশের ওপর মারাত্মক ক্ষতিকর প্রভাব পড়েছে বলেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। জলবায়ু পরিবর্তনের অভিযোজনের ওপর মারাত্মক চ্যালেঞ্জ সৃষ্টি হয়েছে বলেও উল্লেখ করেন তিনি। ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাখোঁর আহ্বানে আয়োজিত ওয়ান প্ল্যানেট সামিটে দেওয়া ভাষণে প্রধানমন্ত্রী বলেন, 'মিয়ানমার থেকে বাস্তুচ্যুত প্রায় ১০ লাখ রোহিঙ্গা আসার ফলে বাংলাদেশ বড় ধরনের চ্যালেঞ্জের সম্মুখীন। মানবিক কারণে আমরা কক্সবাজারে ১৭৮৩ হেক্টর বনভূমিতে তাদেরকে আশ্রয় দিয়েছি। বনায়ন হুমকির মুখে পড়েছে ওই অঞ্চলে। রোহিঙ্গা সংকট আমাদের বন ও পরিবেশের ওপর মারাত্মক ক্ষতিকর প্রভাব সৃষ্টি করেছে। ' শেখ হাসিনা বলেন, 'জলবায়ু পরিবর্তনজনিত ক্ষতিকর প্রভাবের কারণে সবচেয়ে ঝুঁকিপূর্ণ দেশগুলোর মধ্যে বাংলাদেশ অন্যতম, যদিও এই ঝুঁকির জন্য আমরা দায়ী নই। ' তিনি বলেন, 'আমরা স
প্যারিসের রাস্তায় নামাজ আদায়কালে রাজনীতিকদের প্রতিবাদ মিছিল

প্যারিসের রাস্তায় নামাজ আদায়কালে রাজনীতিকদের প্রতিবাদ মিছিল

ফ্রান্সের রাজধানী প্যারিসের একটি শহরতলীর রাস্তায় প্রকাশ্যে মুসলিমদের জুমার নামাজ আদায়ের প্রতিবাদে প্রায় ১০০ রাজনীতিক সেখানে মিছিল করেছেন। বিবিসি জানিয়েছে, অফিসের তেরঙা উত্তরীয় পরা ওই রাজনীতিকরা জাতীয় সংগীত গেয়ে প্যারিসের ক্লিশি এলাকার রাস্তায় প্রায় ২০০ মুসলিমের নামাজ আদায়ে বিঘœ ঘটান। প্রতিবাদে অংশগ্রহণকারীদের বেশির ভাগই মধ্য-ডানপন্থী রিপাবলিকান ও ইউডিআই পার্টির নেতাকর্মী। উভয়পক্ষের মাঝে অবস্থান নিয়ে দু’পক্ষকে বিচ্ছিন্ন করে রাখে পুলিশ, তারপরও কিছু হাতাহাতির ঘটনা ঘটেছে বলে প্রকাশিত প্রতিবেদনে বলা হয়েছে। ফ্রান্সের কঠোর ধর্মনিরপেক্ষ ব্যবস্থায় সরকারি জায়গা ব্যবহার করে নামাজ আদায় অগ্রহণযোগ্য বলে মন্তব্য করেছেন সমালোচকরা। অপরদিকে মুসুল্লিরা দাবি করেছেন, যে ঘরটিতে তারা নামাজ পড়তেন মার্চে টাউন হল কর্তৃপক্ষ তার নিয়ন্ত্রণ নেয়ার পর থেকে তাদের যাওয়ার আর কোনো জায়গা নেই। পশ্চিম ইউরোপের দেশগুলোর মধ্যে ফ্র