ঈদের আগের শেষ কার্যদিবসে দেশের শেয়ারবাজারে বড় উত্থান হয়েছে

ঈদের আগের শেষ কার্যদিবসে দেশের শেয়ারবাজারে বড় উত্থান হয়েছে। বৃহস্পতিবার প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) ও অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) সবকটি মূল্য সূচক বেড়েছে।

মূল্য সূচকের পাশাপাশি বেড়েছে লেনদেনের পরিমাণ। সেই সঙ্গে বেড়েছে লেনদেন হওয়া বেশির ভাগ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের দাম।

এদিন ডিএসইতে লেনদেন হওয়া ১৯৮টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের দাম আগের দিনের তুলনায় বেড়েছে। বিপরীতে দাম কমেছে ৮৮টির। আর দাম অপরিবর্তিত রয়েছে ৫৩টির।

বেশি সংখ্যক প্রতিষ্ঠানের শেয়ার দাম বাড়ায় প্রধান মূল্য সূচক ডিএসইএক্স আগের দিনের তুলনায় ৩৮ পয়েন্ট বেড়ে ৫ হাজার ৩৬৫ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে। অপর দুটি মূল্য সূচকের মধ্যে ডিএসই-৩০ আগের দিনের তুলনায় ৫ পয়েন্ট বেড়ে ১ হাজার ৯৫৮ পয়েন্টে অবস্থা করছে। আর ডিএসই শরিয়াহ সূচক ৯ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে ১ হাজার ২৩৮ পয়েন্টে।

বাজারটিতে লেনদেন হয়েছে ৪৫৭ কোটি ৮৬ লাখ টাকা। আগের দিন লেনদেন হয় ৪৫০ কোটি টাকা। সে হিসাবে আগের দিনের তুলনায় লেনদেন বেড়েছে ৭ কোটি ৮৬ লাখ টাকা।

টাকার অঙ্কে ডিএসইতে সব থেকে বেশি লেনদেন হয়েছে কেপিসিএলের শেয়ার। কোম্পানিটির ২২ কোটি ২২ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। লেনদেনে দ্বিতীয় স্থানে থাকা মুন্নু সিরামিকের ১৬ কোটি ৪২ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। ১৬ কোটি ২১ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেনে তৃতীয় স্থানে রয়েছে ফার্মা এইড।

লেনদেনে এরপর রয়েছে- ইউনাইটেড পাওয়ার জেনারেশন, গ্রামীণফোন, স্কয়ার ফার্মাসিটিক্যাল, জেএমআই সিরিঞ্জ, আলিফ ইন্ডাস্ট্রিজ, লিগাসি ফুটওয়্যার এবং ইন্ট্রাকো রিফুয়েলিং।

অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের সার্বিক মূল্য সূচক সিএসসিএক্স ৬৮ পয়েন্ট বেড়ে ৯ হাজার ৯৮৪ পয়েন্টে অবস্থান করছে। বাজারটিতে লেনদেন হয়েছে ১৩ কোটি ৩০ লাখ টাকা। লেনদেন হওয়া ২১৪টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে ১১৯টির দাম বেড়েছে। বিপরীতে দাম কমেছে ৭১টির। আর দাম অপরিবর্তিত রয়েছে ২৪টির।

image_printপ্রিন্ট

শেয়ার

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।