২২ ফেব্রুয়ারী ২০১৮      

English Varsion

সমঝোতা স্বাক্ষর , দুদকের সঙ্গে তিন সামাজিক সংগঠনের।

অনলাইন ডেস্ক
জানু. ২৩, ২০১৮ ১৫:০৩

তিনটি সামাজিক সংগঠনের সঙ্গে সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। আজ মঙ্গলবার বেলা ১১টায় দুদকের প্রধান কার্যালয়ে ওই সমঝোতা স্মারকের অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। কাইট বাংলাদেশ, গুণীজন ট্রাস্ট ও সিএলপি-ইউএসএ নামের তিন সংগঠনের সঙ্গে এই সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে সভাপতির বক্তব্যে দুদক চেয়ারম্যান ইকবাল মাহমুদ বলেন, কাইট বাংলাদেশ, গুণীজন ট্রাস্ট, সিএলপি-ইউএসএর মতো সামাজিক সংগঠনগলোই সমাজ তথা দেশের চালিকা শক্তি। তাই কমিশন এসকল প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে উত্তম চর্চার বিকাশে একত্রে কাজ করার অভিপ্রায়ে সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর করেছে। আমরা সম্মিলিতভাবে কাজ করতে পারলে অভীষ্ঠ লক্ষ্যে পৌঁছাতে পারব। শহর ও গ্রামাঞ্চলের শিক্ষার গুণগত মান উন্নয়নে গ্রামাঞ্চলের শিক্ষার বিষয়ে আমাদেরকে অধিকতর গুরুত্ব দিতে হবে।

তিনি বলেন, আমি স্বপ্ন দেখি আমাদের শিশুরা খেলতে খেলতে আনন্দচিত্তে শিক্ষা গ্রহণ করবে। কারণ ভয় দিয়ে কখনো শিক্ষা ও কাজ আদায় করা যায় না। আনন্দ ছাড়া যেমন কাজ করা যায় না, তেমনি শিক্ষাও গ্রহণ করা যায় না। মূল্যবোধ ব্যতীত টেকসই উন্নয়নও সম্ভব নয়।

আমরা যদি শিশুদের মাঝে নৈতিক মূল্যবোধ জাগ্রত করতে পারি, তাহলে হয়তো আমরা ৫ থেকে ১০ বছর পরে আরো বেশি হারে সুনাগরিক পাব।

দুদক চেয়ারম্যান বলেন, আমাদের দেশে অনেকের দক্ষতা আছে কিন্তু মূল্যবোধ নেই। মূল্যবোধহীন দক্ষতা অনাবশ্যক। নৈতিক মূল্যবোধই সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ। তিনি দেশের শিক্ষা ব্যবস্থা নিয়ে বলেন, সার্টিফিকেট বা জিপিএ-৫ দিয়ে যে কিছু হয় না এটা স্বীকার করতেই হবে, বরং যারা দক্ষতা ও মূল্যবোধে চর্চা করতে পেরেছে তারাই সাফল্য পাচ্ছে। মার্কিন-যুক্তরাষ্ট্রে অবস্থানরত বাংলাদেশিদের সংগঠন সিএলপি-ইউএসএ, গুণীজন ট্রাস্ট ও  কাইট বাংলাদেশের পক্ষে কাইট এর প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মো. কামরুজ্জামান এবং দুদকের পক্ষে মহাপরিচালক (প্রতিরোধ) মো. জাফর ইকবাল এনডিসি সমঝোতা স্মারকে স্ব-স্ব পক্ষে স্বাক্ষর করেন। তিন বছর মেয়াদি সমঝোতা স্মারকের মেয়াদ ২০২০ সালের ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত বহাল থাকবে।

image_printপ্রিন্ট